চট্টগ্রাম মেরিন একাডেমিতে বন্যহাতি, আতঙ্কে শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা

চট্টগ্রামে বন্যহাতির কবল থেকে অল্পের জন্য রক্ষা পেলেন বাংলাদেশ মেরিন একাডেমির কমান্ডেন্ট ড. সাজিদ হোসেন।  যুগান্তর

শুক্রবার ভোরে কর্ণফুলী থানার মেরিন একাডেমি ক্যাম্পাসে একটি বন্যহাতি ঢুকে পড়ে।বন্যহাতিটি একাডেমির উত্তর ও দক্ষিণ সীমানা প্রাচীর ভেঙ্গে ফেলে। কয়েকটি কলাগাছ নষ্ট করে ও একটি গোয়াল ঘরের ক্ষতি করে।

এ ছাড়াও ক্যাম্পাসে থাকা শিক্ষক, কর্মকর্তা, ক্যাডেট ও কর্মচারীসহ ১ হাজার ২০০ জন এক ঘণ্টা ধরে হাতি আতঙ্কের মধ্যে ছিলেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মেরিন একাডেমির প্রশাসনিক কর্মকর্তা নাজিম উদ্দিন।এ নিয়ে মেরিন একাডেমির কমান্ডেন্ট ড. সাজিদ হোসাইন ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাসও দিয়েছেন। একাডেমিতে এ নিয়ে বন্যহাতির আক্রমণ থেকে অষ্টমবারের মতো রক্ষা পেলেন বলে দেয়া স্ট্যাটাসে উল্লেখ করেছেন তিনি।

কমান্ডেন্ট সাজিদ স্ট্যাটাসের উল্লেখ করেছেন- প্রতিদিনের মতো নামাজ পড়ে, ভোর ৫টা থেকে একাডেমির পাহাড়ি-উপত্যকায় হাঁটছিলাম। নামাজ শেষ করে বের হয়েই দেখি ১০-১২ গজ দূরে অতিকায় এক হাতি। আমি কিংকর্তব্যবিমূঢ়। গত ২-১ বছর ধরে আনোয়ারার দেয়াং পাহাড়ে অনুপ্রবেশকারী কয়েকটা হাতির কথা জানি। ২০১৮ সালের ১৩ জুলাই আনোয়ারার মোহাম্মদপুর এলাকায় আবদুর রহমান নামে একজন মারা যান হাতির আক্রমণে। কিছুদিন আগে আরও একজনন।আর এ মুহূর্তে সেই হাতি আমার সামনে আমি! শেষ পর্যন্ত হাতিটি গাছপালা ও একটি গোয়াল ঘরের ক্ষতিসাধন করে চলে যায়।’